সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

take-care-your-hair.jpg

চুলের যত্ন নিন, সঠিকভাবে

বড় চুলের স্টাইলে বেনী করতে চাইলে প্রথমেই একটি ভালো রাবার ব্যান্ড দিয়ে চুলগুলো বেধে নিন এবং বেনী করা হয়ে গেলে চুলের আগায় আরেকটি রাবার ব্যান্ড দিয়ে বাধুন। এতে চুলের গোড়ায় চাপ পড়বে না।

চমৎকার পোশাক, অসাধারণ সাজ এবং সুন্দর অলংকার, সবকিছুই বৃথা যদি আপনার চুল দেখায় তেলতেলে, ময়লা অথবা নিস্তেজ! সৌভাগ্যবশত, আকর্ষনীয় চুলের জন্য কারো স্যালুন বা দামী চুলের পন্যের দরকার হয় না। এর জন্য চাই সঠিক যত্ন।

সঠিকভাবে চুলে শ্যাম্পু করা, চুল শুকানো ও চুলের সুন্দর স্টাইল করার মাধ্যমে এটি হতে পারে আপনার সবচেয়ে আকর্ষনীয় বৈশিষ্টের মধ্যে একটি। জেনে নিন চুলের যত্নের কিছু প্রয়োজনীয় টিপস:
  • চুলের ভাঙ্গা কমাতে প্রথমেই নিশ্চিত হয়ে নিন যে শ্যাম্পু করার আগে চুল ভালোভাবে ভেজানো হয়েছে কিনা। এরপর পরিমানমতো শ্যাম্পু নিন এবং দুহাতের তালুতে মেখে পুরো চুল জুরে মাখান।

  • শ্যাম্পু করার পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ভালোভাবে চুল ধুয়ে নিন।

  • সব চুলের গোরায় তেল যেনো ভালোভাবে পৌছায় সেজন্য প্রথমে সামনের দিকে ঝুকে চুলগুলো উল্টিয়ে নিন। এবার গোড়া থেকে চুলের আগা পর্যন্ত ভালোভাবে চিরুনি দিয়ে আচরিয়ে নিন যেনো চুলে কোনো জট না থাকে। এরপর দুই হাতে তেল নিয়ে আঙ্গুলের মাথা দিয়ে ভালোকরে পুরো মাথার ত্বকে তেল মালিশ করুন।

  • ব্লো-ড্রায়ার ব্যবহারের আগে আপনার চুল ভালো করে তোয়ালে দিয়ে মুছে নিন। এতে আপনার সময় বাঁচবে এবং অতিরিক্ত তাপে চুল নষ্ট হওয়া থেকেও রেহাই পাবেন।

  • ভেজা চুল আঁচরাবেন না। কারণ ভেজা চুল আঁচরানো চুল ভাঙ্গার একটি অন্যতম কারণ। ভেজা চুলের গোড়া নরম থাকে বলে চুল ওঠেও বেশি।

  • নিস্তেজ, নির্জীব চুল অপুষ্টির লক্ষণ। বেশি বেশি ভিটামিনযুক্ত খাবার খান এবং কোলেস্টরল ও চর্বি জাতীয় খাবার এড়িয়ে চলুন।
     
  • চুলের বিভিন্ন স্টাইল করতে চুল বাধার পর ছোট ছোট যেসব এলোমেলো চুল থাকে ওগুলো সেট করতে হাতের তালুতে সামান্য হেয়ার স্প্রে নিয়ে ওই চুলগুলোর ওপর আলতো করে হাত বুলিয়ে নিন। প্রয়োজন হলে এরপর তাতে চুলের ক্লিপ লাগিয়ে নিন।

  • বড় চুলের স্টাইলে বেনী করতে চাইলে প্রথমেই একটি ভালো রাবার ব্যান্ড দিয়ে চুলগুলো বেধে নিন এবং বেনী করা হয়ে গেলে চুলের আগায় আরেকটি রাবার ব্যান্ড দিয়ে বাধুন। এতে চুলের গোড়ায় চাপ পড়বে না।

  • চুলের স্টাইল করতে স্প্রে ব্যবহার করলে বাধা চুল খোলার সময় তেল অথবা কন্ডিশনার দিয়ে ভালোভাবে চুলে ম্যাসাজ করে চুল ধুয়ে ফেলুন। এতে চুল ওঠা থেকে রক্ষা পাবেন।

  • নিয়মিত চুল আঁচরাবেন এবং চুল পরিষ্কার রাখবেন, এতে চুল ভালো থাকবে।

এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।

hair, care, style, shampoo, oil, vitamin