সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

বাঘের বাচ্চা সমাচার

১১ জুন ২০১২ তারিখের সব নিউজ মিডিয়া থেকে শুরু করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ব্যাপক আলোচিত বিষয় ছিলো ৩টি বাঘের বাচ্চা। রাজধানীর শ্যামলী থেকে উদ্ধার করা হয় ফুটফুটে ৩টি বাঘের বাচ্চা, সেইসাথে এগুলো পাচার করার কাজে জড়িত ২টি মানুষের বাচ্চা! তবে ওই ২টি মানুষের বাচ্চার ছবি কোথাও না দেখা গেলেও এটা অনুমান করা যায় যে তাদের চেহারা ফুটফুটে ছিলো না। একটি সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশ জড়িত ওই দুই ব্যক্তির প্রত্যেককে দুই বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। যারা বাঘের কোল থেকে প্রানপ্রিয় তিন তিনটি বাচ্চা নিয়ে এতদূরে আসতে পেরেছে, তাদের জেলখানায় আটকে রাখতে পারবে - এমন বুকের পাটা কার আছে? কয়েকদিন পর যখন এই খবরের রঙ একটু ফিকে হয়ে যাবে, পাচারকারীরা এবারের সব ভুল শুধরিয়ে নিখুঁতভাবে এর থেকে বেশি বাঘের বাচ্চা পাচার করবে। এটাই হয়, এতদিন হয়ে আসছে। তবে একটা জিনিসের হিসাব মিলাতে পারছি না, আজকে বাঘের বাচ্চার খবরের সাথে সাথে আরেকটা ভয়ানক ছবি খুব চালাচালি হচ্ছে ফেসবুকে - একটা বাঘ কেটে টুকরা টুকরা করে ভাগাভাগি করা হচ্ছে! অসহনীয় একটা দৃশ্য, কিন্তু অনেক ভদ্রলোককে দেখা যাচ্ছে গোল হয়ে দাড়িয়ে ঘটনা পর্যবেক্ষণ করছেন। যদি কোনো গবেষণা সংক্রান্ত কাজ হয়ে থাকে তবে এভাবে ছবি তুলে প্রচার করার কারণ কি? ছবির ভাব দেখে তো মনে হয় না কেউ লুকিয়ে ছবিটি তুলেছেন। কারো কাছে ঘটনাটার ব্যাখ্যা জানা থাকলে এখানে একটু শেয়ার করবেন। আবার প্রথম ঘটনায় ফিরি - এই যাত্রায় হয়তো এই তিনটি বাচ্চা রক্ষা পেলো, আশা করি তারা চিড়িয়াখানার বদ্ধ খাচায় আটকা পরবে না; তাদেরকে তাদের আবাসস্থলে ফিরিয়ে দিয়ে আসা হবে। কিন্তু এরকম কয়টা ঘটনাই বা মানুষের কানে আসে, ঘটনা নিশ্চয় ঘটছে প্রতিনিয়তই। আমরা আমজনতা আর কিইবা করতে পারি এরকম ভার্চুয়াল আস্ফালন ছাড়া!
এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।

royal-bengal-tiger, rescued, Dhaka, animal, rab, sundarban, law, news, facebook