সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

Hair-Straight-easy-way.jpg

স্ট্রেইটনার মেশিন ছাড়াই চুল স্ট্রেইট করুন

চুল নিয়ে নারীর ভাবনার অন্ত নেই। চুল সোজা বা স্ট্রেইট করতে স্ট্রেইটনার মেশিন ব্যবহার বা চুল রিবন্ডিং এখন হাল ফ্যাশনের অংশ। কিন্তু কত ভালোই না হত যদি কোন স্ট্রেইটনার মেশিন বা রিবন্ডিং করা ছাড়াই পাওয়া যেত সোজা, ঝলমলে চুল!

চুল তার কবেকার অন্ধকার বিদিশার নিশা... কিংবা আলগা করো গো খোঁপার বাঁধন,  দিল ওহি মেরা ফাস গেয়ি... বিনোদ বেনীর জরীণ ফিতায় আন্ধা ইশক মেরা কাস গেয়ি... জীবনানন্দের কবিতা থেকে শুরু করে নজরুল সঙ্গীত সবকিছু জুড়েই অবস্থান রয়েছে নারীর চুল বা কেশের।

চুল নারীর জন্য প্রকৃতির এক অনন্য উপহার হচ্ছে। আর তাই এই চুল নিয়ে নারীর ভাবনার অন্ত নেই। চুল সোজা বা স্ট্রেইট করতে স্ট্রেইটনার মেশিন ব্যবহার বা চুল রিবন্ডিং এখন হাল ফ্যাশনের অংশ। কিন্তু কত ভালোই না হত যদি কোন স্ট্রেইটনার মেশিন বা রিবন্ডিং করা ছাড়াই পাওয়া যেত সোজা, ঝলমলে চুল!

তাই আপনার জন্যই আমাদের আজকের আয়োজন। জেনে নিন ঘরে বসে চুল সোজা করার ছয়টি প্রাকৃতিক নিয়ম:

ভেজা চুল আঁচড়াতে থাকুন শুকানো পর্যন্ত:
গোসল করার পর আপনার ভেজা চুলগুলোকে শুকানো পর্যন্ত আঁচড়াতে থাকুন। চুল অল্প করে ভাগ করে নিন আর পাঁচ মিনিট পর পর চুল আঁচড়াতে থাকুন। টেবিল ফ্যানের সামনে দাঁড়িয়ে চুল আঁচড়ালে বেশি ভালো হয় কেননা কাজটা তখন একটু কম সময়ে শেষ হয়।

চুল শক্ত করে আটকান:
ভেজা চুলগুলোকে আঁচড়ানোর পর মাথার মাঝ বরাবর সিঁথি করে নিন। বাম পাশের চুলগুলো আঁচড়ে মাথার পেছন দিকে নিন। এবার চুলগুলোকে ডানদিকে আঁচড়ে এনে শক্ত করে ববি পিন দিয়ে আটকে ফেলুন।

একই নিয়মে ডানপাশের চুলগুলোকে বাম পাশে নিয়ে শক্ত করে আটকে ফেলুন।

চুল পেঁচিয়ে নিন:
ভেজা চুল রোলার দিয়ে পেঁচিয়ে নিন এবং শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। এই কাজটা করা এ জন্যই বেশি গুরুত্বপূর্ণ কেননা আপনার চুল যদি খুব বেশি কোকড়ানো হয়, তাহলে শুকানোর পর আবার কুকড়ে যাবে।

ঘুমানোর আগে চুল ঝুঁটি করে নিন:
ছোটবেলায় স্কুলে যাওয়ার আগে যেমন দুই ঝুঁটি করতেন, ঠিক তেমনি মাঝে সিঁথি করে দুই ঝুঁটি করুন। (খেয়াল রাখবেন ঝুঁটি যেনখুব বেশি আটসাট না হয়)।

এবার ঝুঁটিতে দুই ইঞ্চি পর পর চিকন ইলাস্টিক ব্যান্ড গুলো বেঁধে নিন। ব্যাস এভাবেই ঘুমিয়ে পড়ুন। সকালে ব্যান্ডগুলো খুলে চুল আঁচড়ে নিন ভালো করে।

পেঁচিয়ে খোপা করুন:
ভেজা চুলগুলোকে দড়ি পাকানোর মত টুইস্ট বা পেঁচিয়ে নিন। এবার ঢিলা করে একটা খোপা করে ফেলুন। চুল শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। দেখুন চুল আগের তুলনায় অনেকখানি সোজা হয়ে গিয়েছে।

নিজেই বানিয়ে ফেলুন চুল সোজা করার প্যাক:

  • প্যাক ১:  এক কাপ দুধ বা নারকেলের দুধে এক টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে নিন। ভালো করে মাথার ত্বকে এবং চুলে এই প্যাকটি লাগিয়ে নিন। এক ঘন্টা অপেক্ষা করে চুল ধুয়ে ফেলুন।
  • প্যাক ২: দুই কাপ দুধে একটি ডিম ফেটিয়ে নিন ভালো করে। চুলে ভালো করে লাগিয়ে নিন। ১০ মিনিট ভালো করে ঘষে, ৩০ মিনিট প্লাস্টিকের ক্যাপ পরে থাকুন। এরপর চুল ধুয়ে শুকিয়ে নিন।
  • বিশেষ প্যাক: এক কাপ নারকেল এর দুধ, ৫/৬ টেবিল চামচ লেবুর রস, ২ টেবিল চামচ অলিভ অয়েল, ভুট্টা বা ময়দার কর্নস্ট্রার্চ ৩ টেবিল চামচ মিশিয়ে নিন। এবার অল্প আঁচে দ্রবটিকে ঘন করে নিন। ঠান্ডা করুন এবং এই প্যাক চুলে দিন।

এটা পরীক্ষিত যে প্রতি সপ্তাহে ২ দিন করে দুই মাস এই প্যাকটি ব্যবহারে আপনার চুল হবে সোজা।

জেনে নিলেন তো স্ট্রেইটনার মেশিন ছাড়া চুল স্ট্রেইট করার পদ্ধতিগুলো? তাহলে আর চুল স্ট্রেইট বা রিবন্ডিং করে চুলে ক্ষতি না করে প্রাকৃতিক নিয়মগুলো মানুন আর ঘরে বসেই পেয়ে যান স্টেইট চুল।

তথ্যসূত্র: www.treehugger.com


এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।

beauty, hair, straight, straightener, natural, way