সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

pimple-care-natural.jpg

ব্রণ দূর করার পদ্ধতি

আপনি ইচ্ছা করলে কয়েকটি পদ্ধতিতে আপনার মুখের ব্রণ ও দাগ দূর করতে পারেন। এর জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো, ধৈর্য ও নিয়মিত ভাবে পদ্ধতিগুলো মেনে চলা।

ব্রণের সমস্যা কম বেশি সবারই আছে। দেখা যায় কারো দীর্ঘ সময় ধরে একই জায়গায় ব্রণ উঠে আবার কারো বার বার জায়গা পরিবর্তন করে উঠে। তারপর কালো দাগে ছেয়ে যায় মুখের অধিকাংশ অংশ জুড়ে। দেখতে অনেক টা বাজে দেখায় যদি আপনার সুন্দর ত্বকে বার বার ব্রণের দাগ পড়ে।

ব্রণ মূলত কয়েকটি কারণে হতে পারে:

  • অতিরিক্ত টেনশনে

  • নিয়মিত ঘুম না হলে

  • নোংরা পোশাক পরিধানে ও বালিশে ঘুমালে

  • মাথায় অতিরিক্ত খুশকি থাকলে

  • পানি কম কম পান করলে

  • ভুল প্রসাধনী ব্যবহারের ফলে

  • ত্বক অতিরিক্ত তৈলাক্ত হওয়ার ফলেও ব্রণ ওঠে।

কিন্তু আপনি ইচ্ছা করলে কয়েকটি পদ্ধতিতে আপনার মুখের ব্রণ ও দাগ দূর করতে পারেন:

  • বেশি বেশি পানি পান করুন।

  • সময় মত খাওয়া-দাওয়া ও ঘুমানোর অভ্যাস করুন।

  • সব সময় পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকুন।

  • লেবুর রস ও শসার রস এক সাথে মুখে লাগাতে পারেন। এতে আপনার মুখের দাগ ও ব্রণ ওঠা কমবে। শুধু রাতে এটি ব্যবহার করবেন।

  • প্রতিদিন ব্রণের ওপর মধু বা লবঙ্গ গুড়া করে লাগাতে পারেন। ৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।

  • চন্দন গুড়া ও মুলতানি মাটি ভিজিয়ে মুখে রাখুন ১০-১৫ মিনিট। এরপর ঠান্ডা পানির ঝাপটা দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

  • অ্যালোভেরার রস নিয়মিত দাগের ওপর লাগান দ্রুত কাজ করবে।

  • কাঁচা হলুদ ও মধু মিক্সড করে মুখে লাগিয়ে দেখুন ব্রণ ওঠা কমবে।

  • নিম পাতা ও কমলার খোসা মিহি করে বেটে ব্রণের উপরে দিন।

  • ভাজা-পোড়া খাবার এড়িয়ে চলুন।

  • প্রচুর পরিমান শাক-সবজি খান।

  • মাসে একবার হলেও হারবাল ফেসিয়াল করুন।


এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।