সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

sariawan.jpg

জেনে রাখুন দাঁতের ব্যথা দূর করার ঘরোয়া কিছু উপায়

দাঁতের ব্যথা প্রশমনে লবঙ্গও অনেক উপকারী। যদি আপনার কাছে লবঙ্গের তেল থেকে থাকে, তাহলে এর কয়েক ফোঁটা আক্রান্ত দাঁত ও মাড়িতে লাগান।

দাঁত ব্যথার উৎপত্তি দাঁত ও মাড়ির বিভিন্ন ধরণের সমস্যার কারণে হতে পারে। পাশাপাশি, দাঁতের যথাযথ যত্ন ও সুরক্ষার অভাবও দাঁতের সমস্যার অন্যতম কারণ। এ সমস্যা যে কোন ব্যক্তির যে কোন সময় দেখা দিতে পারে। তবে কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি জানা থাকলে দাঁত ব্যথা থেকে দ্রুত মুক্তি পাওয়া যায়। আপনার সুবিধার্থে দাঁত ব্যথার  ‍কিছু ঘরোয়া সমাধান এখানে দেয়া হলঃ
  • দাঁতের ব্যথার সহজতম সমাধানগুলোর একটি হচ্ছে আক্রান্ত স্হানে বরফের টুকরো/প্যাক লাগানো। এটি ব্যথা আক্রান্ত দাঁতের ওপর কিংবা গালের ওপর লাগাতে পারেন। অনেকে এই ব্যথা থেকে মুক্তির জন্য বৃদ্ধাঙ্গুলি ও তর্জনীর মধ্যবর্তী ভি-আকৃতির জায়গায় বরফ ঘষে থাকেন।
  • ডেন্টাল ফ্লসিং বিশ্বজুড়ে ডাক্তারদের সুপারিশকৃত একটি নিয়ম কিন্তু মুষ্টিমেয় কয়েকজনই কেবল এই নিয়মটি মেনে চলেন। এটি দাঁতের ফাঁকে লেগে থাকা খাদ্যকণা স্হানচ্যুত করতে সাহায্য করে যেগুলো থেকে পরবর্তীতে ব্যথা ও প্রদাহের মতো যন্ত্রণাদায়ক সমস্যা দেখা দিতে পারে।
  • কুসুম গরম পুদিনা চা পান, পুদিনা চা দিয়ে কুলি করা কিংবা আক্রান্ত স্হানে কিছু পরিমাণ পুদিনা পাতা লাগিয়ে রাখলেও দাঁত ব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। এমনকি শুকনো পুদিনা পাতা ব্যথাযুক্ত দাঁতে কমপক্ষে ২০ মিনিট রাখলেও ব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।
  • দাঁতের ব্যথা কমাতে পেঁয়াজের মিহি টুকরো চিবুতে অথবা আক্রান্ত স্হানে রাখতে পারেন।
  • দাঁতের ব্যথা প্রশমনে লবঙ্গও অনেক উপকারী। যদি আপনার কাছে লবঙ্গের তেল থেকে থাকে, তাহলে এর কয়েক ফোঁটা আক্রান্ত দাঁত ও মাড়িতে লাগান। লবঙ্গের ব্যথানাশক প্রকৃতি দাঁতের যন্ত্রণাদায়ক ব্যথা দূর করতে সাহায্য করে। যদি লবঙ্গের তেল না পাওয়া যায়, তাহলে একটা আস্ত লবঙ্গ চিবিয়ে নিন অথবা ব্যথা আক্রান্ত স্হানে রেখে দিন। লবঙ্গের তেল ব্যবহার করলে একটা ব্যাপারে সতর্ক থাকবেন, যাতে এটি গিলে না ফেলেন কিংবা পেটে চলে না যায়। কেননা বেশি পরিমাণে গিলে ফেললে পরবর্তীতে শ্বসন সংক্রান্ত কিংবা লিভারের সমস্যা দেখা দিতে পারে।
  • কুসুম গরম স্যালাইন পানি দিয়ে কুলি করলেও দাঁতের ব্যথা থেকে নিস্তার পাওয়া যায়।
  • যদি দাঁত ব্যথার সাথে সাথে ফোঁড়ার অস্তিত্বও অনুভব করেন, তাহলে আক্রান্ত স্হানে কিছু পরিমাণ ওটস রেখে দিন। ওটস পুঁজ বের করতে সাহায্য করে। পাশাপাশি দাঁত ব্যথাও কমে যাবে।
  • একটু কালো গোলমরিচ গুঁড়া এক চিমটি লবণের সাথে মিশিয়ে প্রতিদিন দু’বার আক্রান্ত স্হানে লাগালে দাঁত ব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।
  • দাঁতের ব্যথা থেকে মুক্তির জন্য ফ্রিজিং করে রাখা কিছু শসার টুকরো আক্রান্ত স্হানে রেখে দিতে পারেন। এটি আক্রান্ত স্হানের নার্ভগুলোকে অবশ করে একটা আরামদায়ক অনুভূতি এনে দেয়। যদি দাঁতে বেশি ব্যথা অনুভব করেন, তাহলে শসার টুকরোগুলোকে ঘরের স্বাভাবিক তাপমাত্রায় রেখেও ব্যবহার করতে পারেন।
  • দাঁত ব্যথা দূর করবার জন্য রসুন এবং সৈন্ধব লবণের পেস্ট তৈরি করে তা আক্রান্ত স্হানে লাগাতে পারেন। তবে রসুনে যাদের এ্যালার্জি আছে কিংবা বিভিন্ন রকম সমস্যা দেখা দেয়, তাদের
  • এ পদ্ধতি ব্যবহার না করাই উত্তম।
দ্রষ্টব্য: যদিও উপরে দেয়া সবগুলো পদ্ধতিই নিরাপদ, তবুও অবস্হার পরিবর্তন না হলে সময়মত ডাক্তার দেখিয়ে রোগ নির্ণয় এবং যথাযথ চিকিৎসা করিয়ে নেওয়াই হবে বুদ্ধিমানের কাজ।
তথ্যসূত্র: ইন্টারনেট

এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।

দাঁত-ব্যাথা, উপায়, বরফ, পেয়াজ-কুচি, লবঙ্গ